পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর | শিল্পী জীবনী

পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর সঙ্গীতে উৎসর্গীকৃত ত্যাগী সন্ন্যাসী স্বর্গীয় বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর ১৮৬২ খ্রিস্টাব্দের ১৯ আগস্ট মহারাষ্ট্রের কুরঙ্গবাড় বা কুরুদণ্ড নামক দেশীয় রাজ্যের বেলগাঁও আমে জন্মগ্রহণ করেন।

পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর | শিল্পী জীবনী

 

পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর | শিল্পী জীবনী

 

পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্ভরজীর পরিবারের সকলেই ধার্মিক ও কীর্তন গায়ক ছিলেন। ধার্মিক পরিবেশে থাকার ফলে তিনি নিজেও ধার্মিক ছিলেন এবং তাঁহার গানগুলিও তাই সাত্ত্বিকভাবাপন্ন ছিল। তাঁহার পিতা পণ্ডিত দিগম্বর গোপালও ছিলেন একজন সুকণ্ঠ কীর্তন গায়ক।

দেবদুর্বিপাকে শৈশবে দৃষ্টিশক্তিহীন হওয়ায় তিনি পড়াশুনায় বেশী দূর অগ্রসর হতে পারেন নাই। সেইজন্যই তিনি পড়াশুনা বন্ধ করিয়া মিরাজে সঙ্গীত শিক্ষা করিতে যান। পণ্ডিত বালকৃষ্ণ বুয়ার নিকট তিনি দীর্ঘকাল সঙ্গীত সাধনা করেন। সঙ্গীত শিক্ষা লাভের পর তিনি অনুভব করেন যে ভারতবর্ষের সম্ভ্রান্ত সমাজে সঙ্গীত সেবকদের বিশেষ কোনো মর্যাদা নাই। তখন তিনি সঙ্গীতকে স্বমর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করিবার চেষ্টায় পরিপূর্ণ ভাবে আত্মনিযোগ করেন এবং বহু দুঃখ কষ্ট সহ্য করিয়াও তিনি এই আত্মনিয়োগে অবিচলিত ছিলেন।

 

Google news
গুগল নিউজে আমাদের ফলো করুন

 

বোম্বাই ও লাহোরে তিনি গান্ধর্ব মহাবিদ্যালয় স্থাপন করেন এবং একটি সঙ্গীত পত্রিকাও প্রকাশ করেন। তৎকালীন জনসাধারণ বিশেষ সঙ্গীতানুরাগী না হওয়ায় তাঁহার এই প্রচেষ্টা যথেষ্ট স্বীকৃতি পায় নাই। তিনি বহু সঙ্গীত বিষয়ক গ্রন্থাদি রচনা করেন।

 

পণ্ডিত বিষ্ণুদিগম্বর পালুস্কর | শিল্পী জীবনী

 

বহু ভক্তিমূলক গান এবং সমসাময়িক অসংখ্য দেশাত্মবোধক গানও তিনি রচনা করিয়াছিলেন। এর কিছুদিন পরে তিনি সাধুভাবে জীবন-যাপন করিতে আরম্ভ করেন এবং রামভজনে আকৃষ্ট হইয়া বিভিন্ন দেশে-বিদেশে তিনি রামধুন গাহিতেন। সঙ্গীতকে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠা করিবার উদ্দেশ্যে তিনি সন্ন্যাসীর বেশে সমস্ত ভারতবর্ষ পরিভ্রমণ করেন এবং স্বরলিপির এক বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতি আবিষ্কার করেন।

তাঁহার কৃতী ছাত্রদের মধ্যে পণ্ডিত ওঙ্কারনাথ ঠাকুর, বিনয়াকরাও পটবর্ধন, বি. আর. দেওধর, এম. বোড়াস, ভি.এস. কগালকর, নারায়ণরাও ব্যাস, বামনরাও পাধ্যে, বি.এন. ঠাকুর প্রভৃতির নাম উল্লেখযোগ্য। ভারত বিখ্যাত গায়ক দত্তাত্রেয় পালস্কর তাঁহারই সুযোগ্য পুত্র। এই ঘরের গায়কগণ খেয়াল গানের পর ঠুংরীর। পরিবর্তে ভজন পরিবেশন করেন। বিষ্ণুদিগম্বরজী ১৯৩১ খ্রী: ২১শে আগস্ট পরলোক গমন করেন।

আরও দেখুনঃ

Leave a Comment